অনলাইনে সাংবাদিকতা শেখার সুযোগ

sanbadik2

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির ব্যবহার ঘটিয়ে বাংলাদেশের বিভিন্ন ক্ষেত্রে যে অগ্রগতি হচ্ছে, সে অগ্রগতির ধারাকে গণমাধ্যমের ক্ষেত্রেও বজায় রাখতে অনলাইনে সাংবাদিকতা শেখার সুযোগ চালু হয়েছে। দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের সাংবাদিক, সাংবাদিকতা শিক্ষার্থীসহ যে কোনো নাগরিক অনলাইনে সাংবাদিকতার এ কোর্সগুলোর মাধ্যমে নিজেদের সমৃদ্ধ করতে পারবেন।

মঙ্গলবার রাজধানীর পিআইবি অডিটরিয়ামে বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউট (পিআইবি) এবং অ্যাকসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রোগ্রামের যৌথ উদ্যোগে ‘অনলাইন সার্টিফিকেট কোর্স অন জার্নালিজম’ শীর্ষক সাংবাদিকতাবিষয়ক ই-লার্নিং প্লাটফর্মের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, অনলাইনে সাংবাদিকতা শিক্ষার এ সুযোগ দেশের সাংবাদিকতা শিল্পের জন্য গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ। এর মাধ্যমে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের সংবাদকর্মীরা নিজেদের আরও যোগ্য ও দক্ষ করে গড়ে তুলতে পারবেন।
পিআইবি মহাপরিচালক মো. শাহ আলমগীরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন তথ্য সচিব মরতুজা আহমদ এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মফিজুর রহমান। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অ্যাকসেস টু ইনফরমেশন প্রোগ্রামের (এটুআই) জনপ্রেক্ষিত বিশেষজ্ঞ নাইমুজ্জামান মুক্তা।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তথ্য সচিব মরতুজা আহমদ বলেন, সংবাদকর্মী ও সাংবাদিকতার শিক্ষার্থীরা এখন নিজেদের ঘরে বসে অবসর সময়ে বিনামূল্যে সাংবাদিকতা বিষয়ে শিখতে পারবেন। নিজেদের জ্ঞান ও কর্মদক্ষতা বাড়ানোর সুযোগ পাবেন। প্রত্যন্ত অঞ্চলের সংবাদকর্মীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও প্রথিতযশা সাংবাদিকদের এ কোর্সে প্রশিক্ষক হিসেবে পাবেন। সাংবাদিকরা কোর্সটির মাধ্যমে শুধু সার্টিফিকেটই পাবেন না, বরং নিজেদের আরও দক্ষ করে তুলতে পারবেন। অনলাইন প্রশিক্ষণ কোর্সের মাধ্যমে দেশের সাংবাদিকতার চর্চা আরও উচ্চতায় এগিয়ে যাবে।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের চেয়্যারম্যান অধ্যাপক মফিজুর রহমান বলেন, অনলাইনে সাংবাদিকতা শেখার পিআইবির এ আয়োজন বাংলাদেশে সাংবাদিকতাবিষয়ক প্রশিক্ষণে নতুন যুগের উন্মোচন করল। ই-লার্নিংয়ের মাধ্যমে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের সংবাদকর্মীরা নিজেদের জ্ঞানকে আরও সমৃদ্ধ করতে পারবে।
অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন এটুআই প্রোগ্রামের জনপ্রেক্ষিত বিশেষজ্ঞ নাইমুজ্জামান মুক্তা অনলাইনে সাংবাদিকতা শিক্ষাকে প্রত্যন্ত অঞ্চলে ছড়িয়ে দেয়ার কাজটাকে গুরুত্বপূর্ণ উল্লেখ করে জানান, ই-লার্নিংয়ের মাধ্যমে সাংবাদিকদের এ শেখার সুযোগ প্রত্যন্ত অঞ্চলের সাংবাদিকদের চর্চা ও কাজের ধরনে পরিবর্তন আনবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১৬ সালের ১ ফেব্রুয়ারি যে মুক্তপাঠের শুভ উদ্বোধন করেছিলেন, সেটা আজ দেশের সংবাদ কর্মীদের প্রশিক্ষণ চাহিদা মেটাতে ভূমিকা রাখতে যাচ্ছে বলে আমরা আনন্দিত।
সভাপ্রধানের বক্তব্যে পিআইবি মহাপরিচালক মো. শাহ আলমগীর বলেন, পিআইবি প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই সাংবাদিকদের পেশাগত দক্ষতা বৃদ্ধিতে কাজ করে আসছে। বাংলা ভাষায় ই-লার্নিংয়ের মাধ্যমে সাংবাদিকতা শেখার পিআইবির নতুন এ আয়োজন দেশের সাংবাদিকতা শিক্ষার ইতিহাসে প্রথম। এ আয়োজনকে কার্যকর ও টেকসই করার জন্য আমরা সর্বাত্মক চেষ্টা করছি। উল্লেখ্য, পিআইবি এবং এটুআই প্রোগ্রামের যৌথ উদ্যোগে সংবাদ কর্মী, সাংবাদিকতার শিক্ষার্থী ও সাংবাদিকতায় আগ্রহী তরুণদের জন্য ‘অনলাইন সার্টিফিকেট কোর্স অন জার্নালিজম’ শীর্ষক সাংবাদিকতাবিষয়ক ৪ মাস মেয়াদি চারটি অনলাইন সার্টিফিকেট কোর্স চালু করেছে। সাংবাদিকতায় বেসিক কোর্স, টেলিভিশন সাংবাদিকতা, অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা ও উন্নয়ন সাংবাদিকতা শীর্ষক এ চারটি কোর্সে সাংবাদিকসহ আগ্রহী শিক্ষার্থীরা বিনামূল্যে রেজিস্ট্রেশনের মাধ্যমে অংশ নিতে পারবেন। কোর্স শেষে শিক্ষার্থীদের সনদপত্রও প্রদান করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *